হোম / বছর শেষে ভর্তুকি কেবল আধারেই
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

বছর শেষে ভর্তুকি কেবল আধারেই

রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি ও ইউজিসি -র স্কলারশিপ পাওয়ার ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই আধার বাধ্যতামূলক হয়েছে৷

রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি ও ইউজিসি -র স্কলারশিপ পাওয়ার ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই আধার বাধ্যতামূলক হয়েছে৷ এবার বাকি সমস্ত সরকারি সুযোগ -সুবিধা ও ভর্তুকি সরাসরি উপভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দিতে চলতি ক্যালেন্ডার বছরের মধ্যেই সব ডিরেক্ট -বেনিফিট -ট্রান্সফার (ডিবিটি ) সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের আধারের সঙ্গে সংযুক্ত করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ একই সঙ্গে সমস্ত ভর্তুকি ও কল্যাণকর প্রকল্প আগামী বছরের ৩১ মার্চের মধ্যে ডিবিটি -র মধ্যে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র৷ এর অর্থ, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির আধার -সংযুক্ত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি ভর্তুকি অথবা সরকারি কল্যাণকর প্রকল্পের অর্থ পেঁৗছে যাবে, যেমন এখন এলপিজি সিলিন্ডারের ভর্তুকির ক্ষেত্রে হয়৷ সরকারের কল্যাণকর তহবিলের অর্থ যাতে সঠিক ও নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের কাছেই শুধুমাত্র পৌঁছায়, তা নিশ্চিত করতে ২০১৩ -র ১ জানুয়ারি ডিবিটি চালু করে কেন্দ্র৷ প্রাথমিক পর্যায়ে আটটি মন্ত্রকের ২৪টি নির্বাচিত প্রকল্প ডিবিটি -র অন্তর্গত ছিল৷ বর্তমানে ১৭টি মন্ত্রকের ৭৪টি প্রকল্পের ক্ষেত্রে ডিবিটি প্রসারিত হয়েছে৷ একই সঙ্গে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত মন্ত্রক এবং রাজ্য সরকারগুলিতে আলাদা করে ডিবিটি সেল তৈরি করা হবে৷ কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিবালয়ের এক পদস্থ কর্তা বলেন , ‘কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত কল্যাণকর ও ভর্তুকি প্রকল্প ২০১৭ -র মার্চের মধ্যে ডিবিটি -র আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে৷ ’ এখনও পর্যন্ত ডিবিটি -র মাধ্যমে প্রায় ৩০ কোটি মানুষকে সব মিলিয়ে ১.২ লক্ষ কোটি টাকা প্রদান করা হয়ে‌ে ছ৷ ডিবিটি প্রকল্পে আরও গতি আনতে গত বছরই এই প্রকল্পকে ক্যাবিনেট সচিবালয়ের আওতায় নিয়ে আসা হয় এবং পিএমও প্রকল্পটির রূপায়ণের উপর নজরদারি করে৷ বর্তমানে পহাল , এলপিজি ভর্তুকি , মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান নিশ্চিত প্রকল্প (এমজিএনআরইজিএস ) এবং জাতীয় সামাজিক সহযোগিতা প্রকল্পে ডিবিটি -র মাধ্যমে নগদ অর্থ উপভোক্তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি পৌঁছে দেওয়া হয়৷ ওই কর্তা জানিয়েছেন , সমস্ত মন্ত্রক , কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা এবং স্বশাসিত সংস্থাগুলিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে , যে তাদের আরও কিছু প্রকল্প ডিবিটি -র অন্তর্ভুক্ত করা যায় কিনা , তা খতিয়ে দেখতে৷


সু্ত্র: এই সময়

Back to top