হোম / ই-গভর্ন্যান্স / ই-গভর্নেন্স অনলাইন সেবা / সরকার-ব্যবসা পরিষেবা (জি২বি)
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

সরকার-ব্যবসা পরিষেবা (জি২বি)

জি২বি বিভাগে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকার/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল যে সব ই-গর্ভন্যান্স পরিষেবা দিয়ে থাকেন সে সব সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত তথ্য দেওয়া হয়েছে এখানে।

অনলাইনে আয়কর রিটার্ন

কোথায় বাধ্যতামূলক

ইলেকট্র্নিক প্রক্রিয়ায় ইন্টারনেটের মাধ্যমে আয়কর রিটার্ন/ফর্ম দাখিলকেই ই-ফাইলিং বলা হয়।

নিম্নলিখিত ক্ষেত্রে রিটার্ন/ফর্ম-এর ই-ফাইলিং বাধ্যতামূলক --

  • ১. অ্যাসেসমেন্ট বছর ২০১৩-১৪ ও পরবর্তী বছরগুলি থেকে কোন করদাতার মোট আয় পাঁচ লক্ষ টাকা বা তার বেশি হলে।
  • ২. অ্যাসেসমেন্ট বছর ২০১২-১৩ ও পরবর্তী বছরগুলি থেকে এ দেশের নাগরিক কোনও ব্যক্তিবিশেষ/ হিন্দু যৌথ পরিবারের দেশের বাইরে সম্পত্তি থাকলে।
  • ৩. আয়কর আইনের ১০(২৩সি)(IV), ১০(২৩সি)(V), ১০(২৩সি)(VI), ১০(২৩সি)(via), ১০এ, ১২এ(১)(বি), ৪৪এবি, ৮০-আইএ, ৮০-আইবি, ৮০-আইসি, ৮০-আইডি, ৮০জেজেএএ, ৮০এলএ, ৯২ই বা ১১৫জেবি ধারা অনুয়াযী যে করদাতাকে অডিট রিপোর্ট জমা দিতে হয় তাঁকে ২০১৩-১৪ অ্যাসেসমেন্ট বছর ও পরবর্তী অ্যাসেসমেন্ট বছর থেকে ওই অডিট রিপোর্ট এবং আয়ের রিটার্ন ইলেকট্রনিক মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
  • ৪. আইনের ১১(২)(এ) ধারা অনুযায়ী যে করদাতা নোটিশ দিতে চান তাঁকে তা ২০১৩-১৪ এবং পরবর্তী অ্যাসেসমেন্ট বছর থেকে ইলেকট্রনিক মাধ্যমে দিতে হবে।
  • ৫. সমস্ত কোম্পানিকে ই-রিটার্ন/ফর্ম ইলেকট্রনিক মাধ্যমে দিতে হবে।
  • ৬. ফার্ম (যাদের ক্ষেত্রে ৪৪এবি ধারা প্রযোজ্য নয়), এওপি, বিওআই, কৃত্রিম বিচার সম্বন্ধীয় ব্যক্তি, সমবায় সংস্থা এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষ যাদের আইটিআর ৫ জমা দিতে হয় তারা ২০১৪-১৫ অ্যাসেসমেন্ট বছর ও পরবর্তী অ্যাসেসমেন্ট বছর থেকে ইলেকট্রনিক মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
  • ৭. একজন করদাতা যাকে ১৩৯(৪বি) ধারা অনুসারে আইটিআর ৭-এ রিটার্ন জমা দিতে হয় তাঁকে ইলেকট্রনিক মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
  • ৮. ভারতের বাসিন্দা যিনি দেশের বাইরে কোনও অ্যাকাউন্টে স্বাক্ষরকারী কর্তৃপক্ষ।
  • ৯. আয়কর আইন ৯০ বা ৯০এ অনুসারে যিনি ছাড় চান বা ৯১ ধারা অনুসারে ডিডাকশন চান।

ই-ফাইলিং-এর ধরন

  • ১. পছন্দ ১ -- ই-ফাইল করতে ডিজিটাল স্বাক্ষর শংসাপত্র (ডিজিট্যাল সিগনেচার সার্টিফিকেট সংক্ষেপে ডিএসসি) ব্যবহার করুন। ফলে পরবর্তীতে আর কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার দরকার নেই।
  • ২. পছন্দ ২ -- ডিএসসি ছাড়া ই-ফাইল করলে একটি আইটিআর-V ফর্ম তৈরি হয়, এই ফর্মটির প্রিন্ট নিয়ে সই করে সিপিসি, বেঙ্গালুরুতে ই –ফাইল করার ১২০ দিনের মধ্যে সাধারণ পোস্ট বা স্পিড পোস্টে পাঠাতে হয়। এই ফর্মটি জমা দেওয়া হয়ে গেলে আর কোনও পদক্ষেপের প্রয়োজন নেই।
  • ৩. পছন্দ ৩ -- ডিএসসি সহ বা ছাড়া ই-রিটার্ন ইন্টারমেডিয়ারির (ইআরআই) মাধ্যমে আয়করের রিটার্ন ই-ফাইল করুন।

    দ্রষ্টব্য:

  • একজন চাটার্ড অ্যাকাউন্টটেন্ট দ্বারা ডিএসসি ব্যবহার করে আয়কর ফর্ম জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক।
  • আয়কর রিটার্ন ই-ফাইলিং-এর ক্ষেত্রে যে ডিএসসিটি ব্যাবহার করা হচ্ছে সেটি অবশ্যই ই-ফাইলিং আবেদনে নথিভুক্ত থাকতে হবে।

ই-ফাইলিং আবেদনের পূর্বশর্ত

  • ১. ব্যবহারকারীকে নিবন্ধীকরণ করতে হবে https://incometaxindiaefiling.gov.in –এ।
  • ২. নিবন্ধীকরণের পূর্বশর্ত হল
    • প্যান কার্ড নম্বর
    • চ্যাটার্ড অ্যাকাউন্টটেন্টের জন্য আইসিএআই-এর সদস্যপদ
  • ৩. নিবন্ধীকরণের পদ্ধতি
    • প্যান নম্বর, পাসওয়ার্ড, প্যান কার্ড অনুযায়ী আপনার ব্যক্তিগত তথ্য বিস্তারিত ভাবে, যোগাযোগের নম্বর এবং ডিজিটাল স্বাক্ষর (যদি পাওয়ায় যা এবং প্রযোজ্য হয়) দিন
    • অনুরোধ পাঠান
    • সফল হলে একটি সক্রিয়করণ লিঙ্ক পাঠানো হবে ই-মেলে এবং মোবাইল পিন মোবাইল নম্বরে। সক্রিয়করণ লিঙ্কটি খুলুন এবং আপনার ই-ফাইলিং অ্যাকাউন্টকে সক্রিয় করতে মোবাইল পিনটি দিন।
    • একবার নথিভুক্ত হলে, ব্যবহারকারী ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড, জন্ম তারিখ এবং ক্যাপ্টচা কোড লগ ইন করতে পারবেন।

কী ভাবে ই-ফাইল

আয়কর রিটার্ন ই-ফাইল করা যাবে :

  • ১. আয়কর রিটার্ন আপলোড-- করদাতা আয়কর রিটার্ন ই-ফাইল করতে পারবেন আইটিআর ১ থেকে আইটিআর ৭-এ।
  • ২. আইটিআর ১/আইটিআর ৪ এস অনলাইনে জমা-- একজন করদাতা অনলাইনে আয়কর রিটার্ন-আইটিআর-১/আইটিআর ৪এস জমা দিতে পারবেন।

কী ভাবে আয়কর রিটার্ন আপলোড করবেন :

  • ১. ‘ডাইনলোড’ বিভাগে যান এবং সংশ্লিষ্ট অ্যাসেসমেন্ট বছরে প্রযোজ্য আয়কর রিটার্ন ফর্ম বাছুন
  • ২. আয়কর রিটার্নের (আইটিআর) ইউটিলিটি ডাউনলোড করুন
  • ৩. ইউটিলিটি পূরণ করুন এবং বৈধ করুন
  • ৪. এক্সএমএল ফাইল তৈরি করুন এবং আপনার কমপিউটারের নির্দিষ্ট জায়গা সেভ করে রাখুন
  • ৫. ই-ফাইলিং আবেদনে লগ-ইন করুন এবং এই ধাপগুলি প্রযোগ করুন। গো টু —> ই-ফাইল—>আপলোড রিটার্ন
  • ৬. আয়কর রিটার্ন ফর্ম এবং অ্যাসেসমেন্ট বছর বাছুন
  • ৭. আপনার কমপিউটারে রাখা এক্সএমএল ফাইলটিকে সিলেক্ট করুন
  • ৮. ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট আপলোড করুন। যদি পাওয়া যায় এবং প্রযোজ্য হয়।
  • ৯. ‘সাবমিট’-এ ক্লিক করুন
  • ১০.সফলতার সঙ্গে আপলোড হলে আপনার আবেদন স্বীকৃতির বিস্তারিত দেখা যাবে। দেখার জন্য ও প্রিন্ট করার জন্য লিঙ্কে ক্লিক করুন।

দ্রষ্টব্য:

  • ১. ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট ব্যবহার করে ই-ফাইল করতে হলে তা আবেদনে নিবন্ধন করতে হবে।
  • ২. যদি আয়কর রিটার্ন ডিএসসি (ডিজিটালি সই করা)- সহ আপলোড করা হয়, তবে ‘অ্যাকনলেজমেন্ট’ তৈরি সঙ্গে সঙ্গে আবদনের প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হবে
  • ৩. যদি ডিএসি (ডিজিটালি সই করা) ছাড়া রিটার্ন আপলোড করা হয়, তবে সফলতার সঙ্গে আপলোড হলে একটি আইটিআর-V ফর্ম তৈরি হবে। এটি আবেদনে স্বীকৃতি এবং যাচাইয়ের ফর্ম। এই ফর্মটি খুঁটিয়ে দেখে, সই করে সিপিসিতে পাঠাতে হবে। সিপিসি, বেঙ্গালুরু আইটিআর-V ফর্ম পেলেই আপনার ই-রিটার্ন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে।

অনলাইনে আইটিআর-১/আইটিআর ৪এস জমা

  • ১. ই-ফাইলিং আবেদনে লগ-ইন করুন
  • ২. ‘ই-ফাইল’-এ যান —>‘প্রিপেয়ার অ্যান্ড সাবমিট আইটিআর অনলাইন’
  • ৩. আয়কর রির্টান ফর্ম আইটিআর১/ আইটিআর৪এস এবং অ্যাসেসমেন্ট বছর বাছুন
  • ৪. বিস্তারিত ভাবে পূরণ করে ‘সাবমিট’-এ ক্লিক করুন
  • ৫. সফলভাবে জমা হয়ে গেলে, আবেদনের স্বীকৃতির বিস্তারিত দেখা যাবে। দেখার জন্য ও প্রিন্ট করার জন্য লিঙ্কে ক্লিক করুন।

দ্রষ্টব্য:

  • ১. ডিজিটাল স্বাক্ষর সার্টিফিকেট ব্যবহার করে ই-ফাইল করতে হলে তা আবেদনে নিবন্ধন করতে হবে।
  • ২. যদি আয়কর রিটার্ন ডিএসসি (ডিজিটালি সই করা)- সহ আপলোড করা হয়, তবে ‘অ্যাকনলেজমেন্ট’ তৈরি সঙ্গে সঙ্গে আবদনের প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হবে
  • ৩. যদি ডিএসি (ডিজিটালি সই করা) ছাড়া রিটার্ন আপলোড করা হয়, তবে সফলতার সঙ্গে আপলোড হলে একটি আইটিআর-V ফর্ম তৈরি হবে। এটি আবেদনে স্বীকৃতি এবং যাচাইয়ের ফর্ম। এই ফর্মটি খুঁটিয়ে দেখে, সই করে সিপিসিতে পাঠাতে হবে। সিপিসি, বেঙ্গালুরু আইটিআর-V ফর্ম পেলেই আপনার ই-রিটার্ন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে।
সহায়তার প্রয়োজনে

আয়কর/প্যান/ট্যান/অন্যান্য কোনও জিজ্ঞাসা থাকলে ফোন করুন ১৮০০ ১৮০ ১৯৬১

ফেরত সংক্রান্ত কোনও প্রশ্নের জন্য ফোন করুন ১৮০০ ৪২৫ ২২২৯

ই-রিটার্ন জমা দেওয়া সংক্রান্ত কোনও প্রশ্নের জন্য ফোন করুন ১৮০০ ৪২৫০ ০০২৫

সূত্র : আয়কর বিভাগ, অর্থমন্ত্রকের রাজস্ব বিভাগ https://incometaxindiaefiling.gov.in/e-Filing/

2.66666666667
তারকাগুলির ওপর ঘোরান এবং তারপর মূল্যাঙ্কন করতে ক্লিক করুন.
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
Back to top