ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

শিশু নিগ্রহ

শিশু নিগ্রহ

ভারত সরকারের নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রক দ্বারা পরিচালিত একটি সমীক্ষায় (শিশু নিগ্রহ সম্পর্কে সমীক্ষা : ভারত ২০০৭) দেখা যায়, বিভিন্ন ধরনের নিগ্রহের যারা শিকার, তার মধ্যে নিগৃহীত ও শোষিত হওয়ার ঝুঁকি ৫ থেকে ১২ বছরের শিশুদের সবচেয়ে বেশি। এর মধ্যে শারীরিক, যৌন এমনকী মানসিক  নিগ্রহও রয়েছে ৷

শারীরিক নিগ্রহ

  • প্রতি তিনটি শিশুর মধ্যে দু’জন শারীরিক নিগ্রহের শিকার।
  • যে ৬৯ শতাংশ শিশু শারীরিক ভাবে নিগ্রহের শিকার তাদের  মধ্যে ৫৪.৬৮ শতাংশ ছেলে ৷
  • ৫০ শতাংশের বেশি শিশু কোনও না কোনও ধরনের শারীরিক নিগ্রহের শিকার ৷
  • পরিবারের মধ্যেই যে সকল শিশু শারীরিক ভাবে নিগৃহীত হয়, তাদের মধ্যে ৮৮.৬ শতাংশ তাদের বাবা মায়ের দ্বারা  আক্রান্ত হয়ে থাকে৷
  • অন্য রাজ্যগুলির তুলনায় অন্ধ্র প্রদেশ, অসম, বিহার এবং দিল্লিতে সব রকমের শারীরিক  নিগ্রহের হার অনেক বেশি।
  • ৫০.২ শতাংশ শিশু সপ্তাহের সাত দিনই কাজ করে ৷

যৌন নিগ্রহ

  • ৫৩.২২ শতাংশ শিশু এক বা একাধিক প্রকারের যৌন নিগ্রহের শিকার বলে জানিয়েছে।
  • ছেলে ও মেয়ে উভয়ের দিক থেকেই যৌন নিগ্রহের শতকরা হার অন্ধ্রপ্রদেশ, অসম, বিহার এবং দিল্লিতে সর্বোচ্চ।
  • ২১.৯০ শতাংশ শিশু মারাত্মক রকমের যৌন নিগ্রহের শিকার বলে জানিয়েছে এবং ৫০.৭৬ শতাংশ শিশু অন্য ধরনের যৌন নিগ্রহের শিকার।
  • অন্ধ্র প্রদেশ, অসম, বিহার এবং দিল্লির শিশুরা সব চেয়ে বেশি যৌন নিগ্রহের শিকার বলে তথ্যে প্রকাশিত।
  • যারা নিগ্রহ করে, তাদের ৫০ শতাংশ শিশুদের পরিচিত ব্যক্তি অথবা তাদের ওপর বিশ্বাস রাখা হয় এবং তাদের দায়িত্ববোধের ওপর ভরসা করা হয়।

মানসিক নিগ্রহ ও শিশু কন্যাকে অবহেলা

  • প্রতি দু’জনের মধ্যে একজন শিশু মানসিক নিগ্রহের শিকার।
  • শতকরা হিসেবে মানসিক ভাবে নিগৃহীত ছেলে ও মেয়ের সংখ্যা সমান।
  • ৮৩ শতাংশ ক্ষেত্রে বাবা মায়েরাই মানসিক নিগ্রহ করে থাকেন।
  • ৪৮.৪ শতাংশ মেয়ে বলেছে, তারা যদি ছেলে হত তা হলে ভাল হত৷

সূত্রঃ নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রক

3.01418439716
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top