হোম / শিক্ষা / শিক্ষক অঙ্গন / শিক্ষক, শিক্ষণ এবং আইসিটি / শিক্ষকদের পেশাদারিত্বের বিকাশ
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

শিক্ষকদের পেশাদারিত্বের বিকাশ

শিক্ষাক্ষেত্রে আইসিটিকে সাফল্যের সঙ্গে ব্যবহার করার জন্য নিরবচ্ছিন্ন শিক্ষক শিক্ষণ ও সাহায্য জরুরি।

শিক্ষাক্ষেত্রে আইসিটি-এর সফল ব্যবহারের জন্য শিক্ষক শিক্ষণ ও পেশাদারিত্বের বিকাশকে মূল চালিকাশক্তি হিসাবে দেখা হয়।

শিক্ষকের পেশাদারিত্বের বিকাশ কোনও ঘটনা নয়, এটি একটি ধারা।

সাবেক এককালীন শিক্ষক শিক্ষণ কর্মশালা শিক্ষকদের আইসিটি ব্যবহার সুবিধাজনক করে তোলার ক্ষেত্রে সাহায্য করেছে, এমনটাই যেখানে দেখা যায়নি, সেখানে একে তাঁদের শিক্ষাদানের প্রণালীতে সার্থক ভাবে মিলিয়ে দেওয়ার কথা তো অনেক দূরের ব্যাপার। দেখা গেছে ছাড়া ছাড়া ‘একটি মাত্র’ শিক্ষণ কার্যশালা নিরবচ্ছিন্ন পেশাদারিত্ব বিকাশ কার্যক্রমের চেয়ে কম কার্যকর হয়।

আইসিটি-র প্রবর্তন শিক্ষকদের নিরবচ্ছিন্ন পেশাদারিত্ব বিকাশের প্রয়োজনীয়তার প্রসার ঘটায়।

শিক্ষায় আইসিটি-র কার্যকর ব্যবহার শিক্ষকদের শিক্ষণ ও পেশাদারিত্বের বিকাশের প্রয়োজন বাড়িয়ে দেয়। অবশ্য, আরও বেশি ও ভালো পাঠ্যবস্তু পেতে সাহায্য করে, নিয়মমাফিক প্রশাসনিক কাজে সাহায্য করে, কার্যকর শিক্ষণ পদ্ধতির মডেল ও প্রতিরূপ দিয়ে এবং সামনাসামনি ও দূরবর্তী উভয় রকমের এবং প্রকৃত সময়ে ও ভিন্ন সময়ে শিক্ষা গ্রহণে শিক্ষার্থীদের শৃঙ্খল তৈরিতে সাহয্য করে এই বর্ধিত চাহিদা মেটানোর ক্ষেত্রে আইসিটি একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার হতে পারে।

শিক্ষকদের সফল পেশাদারিত্বের বিকাশের মডেলকে তিনটি পর্যায়ে ভাগ করা যায়।

শিক্ষকদের সফল পেশাদারিত্বের বিকাশের মডেলকে তিনটি পর্যায়ে ভাগ করা যায় :

  • ১) চাকুরির পূর্বে, মূল লক্ষ্য রাখা শিক্ষাদান প্রণালী, বিষয়গত ব্যুৎপত্তি, ব্যবস্থাপনায় দখল এবং বিভিন্ন শিক্ষণ উপকরণগুলির (আইসিটি সহ) ব্যবহারের ওপর প্রারম্ভিক প্রস্তুতি;
  • ২) চাকুরিরত অবস্থায়, গঠনগত, মুখোমুখি এবং দূরবর্তী শিক্ষার সুযোগ সহ, চাকুরির পূর্বে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা এবং শিক্ষকদের সরাসরি প্রয়োজন সম্পর্কিত বিষয়; এবং
  • ৩) আইসিটি-র মাধ্যমে শিক্ষকদের দৈনিক লক্ষ্য ও চ্যালেঞ্জের বিষয়টি খেয়াল রেখে নিরবচ্ছিন্ন প্রথাগত ও অপ্রথাগত শিক্ষাদান পদ্ধতি এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা

শিক্ষকদের কার্যকর পেশাদারিত্ব বিকাশে কার্যকর শিক্ষণ পদ্ধতি অনুসরণ করা উচিত।

শিক্ষকদের কার্যকর পেশাদারিত্ব বিকাশের জন্য যত দূর সম্ভব শ্রেণিকক্ষের পরিবেশ অনুসরণ করা উচিত। যেখানে আইসিটিকে শিক্ষণ ও শিক্ষা পদ্ধতির জরুরি অঙ্গ বলে ধরা হয়, সেখানে আইসিটি ব্যবহারের উপর “হাতে কলমে” নির্দেশাবলি প্রয়োজন। তদুপরি, পেশাদারিত্ব বিকাশ ক্রিয়াকলাপগুলির উচিত কার্যকর প্রণালী ও ব্যবহার অনুসরণ করা এবং শিক্ষকদের মধ্যে সহযোগিতাকে উৎসাহ দেওয়া ও সাহায্য করা। যে আইসিটি সুবিধাগুলি পাওয়া যাচ্ছে, বিদ্যালয় স্তরে সেগুলির ব্যবহার সাফল্যের চাবিকাঠি বলে মনে করা হয়, বিশেষত যখন শিক্ষকদের নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যবহার্য সংক্রান্ত সম্পদ ও শৈলীর দিকে নজর দেওয়া হয়।

মূল্যায়ন সম্পর্কে প্রশিক্ষণ গুরুত্বপূর্ণ।

পেশাদারিত্ব বিকাশের মধ্যে মূল্যায়ন ও শিক্ষাদান প্রণালীর পরিবর্তন পদ্ধতি এবং শিক্ষকদের বিভিন্ন প্রকার মূল্যায়ন পদ্ধতির সঙ্গে পরিচিত করানোর ব্যাপারটি যুক্ত থাকা উচিত।

কার্যকর পেশাদারিত্ব বিকাশের জন্য ভালো মতন পরিকল্পনা প্রয়োজন।

শিক্ষকদের পেশাদারিত্ব বিকাশ ক্রিয়াকলাপ শুরু ও অংশগ্রহণের আগে চাহিদার একটি মূল্যায়ন দরকার। যদি পেশাদারিত্ব বিকাশকে কার্যকর করতে হয় এবং শিক্ষকদের প্রয়োজনানুগ করতে হয়, তবে এই ক্রিয়াকলাপগুলির নিয়মিত পর্যবেক্ষণ দরকার এবং একটি মতামত দান চক্র গড়ে তোলা দরকার।

শিক্ষকদের জন্য নিরবচ্ছিন্ন, নিয়মিত সহায়তা অত্যন্ত জরুরি।

শিক্ষকদের পেশাদারিত্ব বিকাশে নিরবচ্ছিন্ন ও নিয়মিত সহায়তা আবশ্যক এবং আইসিটি ব্যবহারের দ্বারা (ওয়েবসাইট, গোষ্ঠীবদ্ধ আলোচনা, ই-মেল গোষ্ঠী, রেডিও বা টেলিভিশন সম্প্রচার রূপে) এটি সুচারু রূপে সম্পন্ন করা যায়।

2.9875
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top