ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

পাঠক্রমে ধর্ষণ সচেতনতা

আন্তর্জাতিক নারীবর্ষে নতুন এই শিক্ষানীতির কথা ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ শিক্ষামন্ত্রক।

স্কুল শিক্ষাক্রমে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে চলেছে ব্রিটেন। ব্রিটেনের স্কুলগুলির পাঠক্রমে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে নতুন বিষয় --- ধর্ষণ সচেতনতা। বিশ্বের বহু দেশের মতো ‘টিন এজ’-এই যৌন সম্পর্ক স্থাপন একটা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে ব্রিটেনে। না বুঝে যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ছে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা, ডেকে আনছে নানাবিধ সমস্যা ও বহু রকমের বিপদ। তাই ঠিক হয়েছে, ১১ বছর বয়স থেকেই পড়ুয়াদের ধর্ষণ ও সম্মতিক্রমে যৌন সম্পর্ক --- এই দুই বিষয়ে ফারাক কোথায় তা স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দেওয়া হবে। তাই স্কুল পাঠক্রমে ধর্ষণ সচেতনতা সম্পর্কিত বিষয় অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষামন্ত্রক। পরিস্থিতির সঙ্গে যাতে খাপ খাওয়াতে যাতে পড়ুয়াদের, বিশেষ করে মেয়েদের কোনও অসুবিধা না হয়, তার জন্যই পাঠক্রমে এমন অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ব্রিটেনের শিক্ষাসচিব নিকি মর্গান জানিয়েছেন, বর্তমানে ছাত্রীদের নানা ধরনের সমস্যার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। সমাজে এমন অনেক ধরনের মানুষ রয়েছেন, যাঁদের উদ্দেশ্যই হচ্ছে কমবয়সিদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক গড়া, ছোটদের যৌন হেনস্থা করা। সেই কারণেই শিক্ষামন্ত্রক থেকে ঠিক করা হয়েছে পড়ুয়াদের বিশেষ করে কমবয়সি ছাত্রীদের এ ধরনের যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার বিপদ সম্পর্কে ওয়াকিবহাল করা হবে। জোর করে যৌন সম্পর্ক করা বা কাউকে ধর্ষণ করা যে শাস্তিযোগ্য অপরাধ তা বোঝানো হবে। সম্মতিক্রমে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করা এবং তার ভালো ও খারাপ দিকগুলি সম্পর্কে ছাত্রীদের জানিয়ে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এটাও তাদেরজানিয়ে দেওয়া হবে যে কোন কোন লক্ষণ দেখে বোঝা যাবে পাশের ব্যক্তি তার সঙ্গে নিছকই আলাপ করতে চায় নাকি ‘বন্ধুত্ব’ করার ছল করছে ধর্ষণের উদ্দেশ্য নিয়েই। ইস্টারের ছুটির পর স্কুল খুললে যে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হবে সেই শিক্ষাবর্ষ থেকেই এই পাঠক্রম চালু করা হবে বলে জানা গিয়েছে। আন্তর্জাতিক নারীবর্ষে নতুন এই শিক্ষানীতির কথা ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ শিক্ষামন্ত্রক।

সূত্র: এই সময়, ৯ মার্চ, ২০১৫

2.97368421053
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top