হোম / শিক্ষা / জ্ঞান বিজ্ঞান / বিজ্ঞান বিভাগ / বায়ুবিহীন টায়ারেই চলবে সাইকেল!
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

বায়ুবিহীন টায়ারেই চলবে সাইকেল!

একটি বায়ুবিহীন টায়ার আপনার সাইকেল ভ্রমণের আনন্দকে অনেক গুণ বাড়িয়ে দেয়ার জন্য যথেষ্ট। কারণ এক্ষেত্রে আপনার সাইকেলের টিউবে বাতাস ঢোকানো কিংবা ছিদ্র হয়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তা করতে হবে না আর সাথে অতিরিক্ত সরঞ্জামও বহন করতে হবেনা।

একটি বায়ুবিহীন টায়ার আপনার সাইকেল ভ্রমণের আনন্দকে অনেক গুণ বাড়িয়ে দেয়ার জন্য যথেষ্ট। কারণ এক্ষেত্রে আপনার সাইকেলের টিউবে বাতাস ঢোকানো কিংবা ছিদ্র  হয়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তা করতে হবে না আর সাথে অতিরিক্ত সরঞ্জামও বহন করতে হবেনা। এই সুবিধার কথা চিন্তা করেই নেক্সো কোম্পানি একটি বায়ুবিহীন টায়ার তৈরী করেছে। এতে কোন প্রকার টিউব এবং বায়ু ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়বেনা।

বায়ুবিহীন টায়ারের ধারণা একদম নতুন না হলেও, প্রচলিত টায়ারের তুলনায় এটি কম শক্ত হওয়ায় এবং অধিক ধাক্কা সহ্য করতে না পারায় খুব একটা ব্যবহৃত হয়না। কিন্তু উটাহ ভিত্তিক এই কোম্পানীটির দাবি তারা এই সমস্যাগুলোর সমাধান করতে পেরেছে।  পলিম্যাটারের মিশ্রণ এই টায়ারকে শুধু চাপের নিখুঁত ভারসাম্যই দেয় না সাথে স্থায়িত্বও প্রদান করে থাকে।

টায়ারগুলো দুটি ভিন্ন আকারে তৈরী করা হয়েছে, একটি বিদ্যমান চাকার উপর লাগানো যায় যা ৩,১০০ মাইল পর্যন্ত চলবে। অন্যটি সম্পূর্ণ নতুন চাকা হিসেবে প্রতিস্থাপন  করতে হবে, যা ৫,০০০ মাইল পর্যন্ত চলতে সক্ষম হবে।

এই টায়ারগুলো একটিমাত্র উপাদান দ্বারা তৈরী হওয়ায় খুব সহজেই পুনঃব্যবহারের উপযোগী করে তোলা যায়। ধারণা করা হয়, প্রতিবছর প্রায় ১০,০০০,০০০ টন সাইকেলের টায়ার এবং টিউব বাতিল হয়। সেদিক থেকে বায়ুবিহীন টায়ার একটি সঠিক ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ।

সূত্র: বিজ্ঞান পত্রিকা

2.98701298701
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top