ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

আলফ্রেড নোবেল

সুইডিশ রসায়নবিদ প্রকৌশলী ডিনামাইটের আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ১৮৯৬ সালের ১০ ডিসেম্বর পরলোকগমন করেন।

সুইডিশ রসায়নবিদ প্রকৌশলী ডিনামাইটের আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ১৮৯৬ সালের ১০ ডিসেম্বর পরলোকগমন করেন। ইস্পাত কারখানা বোফর্সের মালিকানা নেওয়ার পর তিনি এটাকে বিখ্যাত অস্ত্র নির্মাণ কারখানায় পরিণত করেন। নোবেল পুরস্কার প্রবর্তনের জন্য তিনি তাঁর সম্পদ দান করে যান। কৃত্রিম ভাবে প্রস্তুত মৌল নোবেলিয়াম তাঁর নামানুসারে।

১৮৩৩ সালের ২১ অক্টোবর তাঁর জন্ম স্টকহোমে। ইমানুয়েল নোবেল এবং ক্যারোলিনা অ্যাড্রিয়েট তাঁর বাবা-মা। পৈতৃক দিক থেকে নোবেল ছিলেন সুইডিশ বিজ্ঞানী ওলাস রুডবেকের উত্তরসূরি। নোবেল নিকোলাই জেনিনের কাছে রসায়ন বিষয়ে পড়াশোনা করেন। ১৮৫০ সালে উচ্চতর পড়াশোনার জন্য প্যারিসে চলে আসেন। ১৮ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসেন ৪ বছরের জন্য রসায়ন পড়তে। ডিনামাইটসহ মোট ৩৫০টি স্বত্ব রয়েছে নোবেলের নামে। রাশিয়া থেকে বাবা-মায়ের সঙ্গে দেশে ফিরে আসার পর নোবেল বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ে ব্যাপক পড়াশোনা করেন। ১৮৬৩ সালে তিনি ডেটোনেটর আবিষ্কার করেন। ১৮৬৪ সালে নাইট্রোগ্লিসারিনের একটি গুদাম বিস্ফোরিত হয়ে তাঁর ছোট ভাই এমিল সহ ৫ জন মারা যান। কিন্তু নাছোড়বান্দা নোবেল এতে আশা ছেড়ে দেননি। বরং বিস্ফোরক দ্রব্যের স্থিতি আনতে বিশেষ নজর দেন। ১৮৬৭ সালে তিনি ডিনামাইট আবিষ্কারে সফল হন।

১৯০১ খ্রিস্টাব্দে নোবেল প্রবর্তিত হয়। ঐ বৎসর থেকে সারা পৃথিবীর বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সফল এবং অনন্য সাধারণ গবেষণা ও উদ্ভাবন এবং মানবকল্যাণমূলক তুলনারহিত কর্মকাণ্ডের জন্য এই পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। মোট ছয়টি বিষয়ে পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিষয়গুলো হল: পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসা শাস্ত্র, অর্থনীতি, সাহিত্য এবং শান্তি। নোবেল পুরস্কারকে এ সকল ক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পদক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্তদেরকে ইংরেজিতে নোবেল লরিয়েট বলা হয়।

সুয়েডীয় বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের ১৮৯৫ সালে করে যাওয়া একটি উইল-এর মর্মানুসারে নোবেল পুরস্কার প্রচলন করা হয়। নোবেল মৃত্যুর পূর্বে উইলের মাধ্যমে এই পুরস্কার প্রদানের ঘোষণা করে যান। শুধুমাত্র শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হয় অসলো, নরওয়ে থেকে। বাকি ক্ষেত্রে স্টকহোম, সুইডেনে এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

সূত্র : বিশ্বের সেরা ১০১ বিজ্ঞানীর জীবনী, আ. ন. ম. মিজানুর রহমান পাটওয়ারি, মিজান পাবলিশার্স, ঢাকা

3.0
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top