হোম / শিক্ষা / জ্ঞান বিজ্ঞান / বিজ্ঞান বিভাগ / ভারতীয় বিজ্ঞানীদের কথা
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

ভারতীয় বিজ্ঞানীদের কথা

এই বিভাগটিতে বিখ্যাত ভারতীয় বিজ্ঞানীদের জীবন ও অবদান নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

আর্যভট্ট
আর্যভট্ট (৪৭৬ খ্রিস্টাব্দ – ৫৫০ খ্রিস্টাব্দ) প্রাচীন ভারতের সবচেয়ে বিখ্যাত গণিতবিদদের মধ্যে এক জন। তাঁর নামে ভারতের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহের নাম ‘আর্যভট্ট’ রাখা হয়।
বরাহমিহির
বরাহমিহির প্রাচীন ভারতের গুপ্ত সাম্রাজ্যের সমসাময়িক (আনুমানিক ৫০৫ খ্রিস্টাব্দ - ৫৮৭ খ্রিস্টাব্দ) এক জন বিখ্যাত দার্শনিক, জ্যোতির্বিজ্ঞানী, গণিতবিদ ও কবি।
রাধাগোবিন্দ চন্দ্র
রাধাগোবিন্দ চন্দ্র (১৬ জুলাই ১৮৭৮, বাগচর গ্রাম, যশোর -- ৩ এপ্রিল ১৯৭৫, দুর্গাপল্লি, বারাসাত) ভারত উপমহাদেশের সফলতম জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের এক জন। তিনি পর্যবেক্ষণমূলক জ্যোতির্বিজ্ঞান চর্চার দিক নির্দেশনা দিয়ে গেছেন। তার জন্ম তৎকালীন ভারতবর্ষের পূর্ববঙ্গে তথা বর্তমান বাংলাদেশে।
কিশোরীমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়
কিশোরীমোহন বন্দ্যোপাধ্যায় (১৮৭৭ - ১৯২৯) ব্রিটিশ ভারতের এক জন খ্যাতনামা বিজ্ঞানী ও স্যার রোনাল্ড রস-এর সহ-গবেষক ছিলেন। রোনাল্ড রস ম্যালেরিয়ার জীবাণুবাহী হিসাবে অ্যানোফিলিস মশাকে চিহ্নিত করে ১৯০২ সালে নোবেল পুরস্কার পান। কিশোরীমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ১৯০৩ সালে সম্রাট সপ্তম এডোয়ার্ডের স্বর্ণপদক দ্বারা পুরস্কৃত করা হয়।
আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়
প্রফুল্লচন্দ্র রায় যিনি পি সি রায় নামেও পরিচিত (আগস্ট ২, ১৮৬১ - জুন ১৬, ১৯৪৪) এক জন প্রখ্যাত বাঙালি রসায়নবিদ, বিজ্ঞানশিক্ষক, দার্শনিক, কবি। তিনি বেঙ্গল কেমিক্যালের প্রতিষ্ঠাতা এবং মার্কিউরাস নাইট্রাইট-এর আবিষ্কারক। দেশি শিল্পায়নের প্রবক্তা। তাঁর জন্ম অবিভক্ত বাংলার খুলনা জেলায় (বর্তমানে বাংলাদেশের অন্তর্গত)।
মেঘনাদ সাহা
মেঘনাদ সাহা এফআরএস (অক্টোবর ৬, ১৮৯৩ – ফেব্রুয়ারি ১৬, ১৯৫৬) ছিলেন একজন জ্যোতির্পদার্থবিজ্ঞানী যিনি পদার্থবিজ্ঞানে থার্মাল আয়নাইজেসন তত্ত্বের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে বিখ্যাত। তাঁর আবিষ্কৃত সাহা আয়োনাইজেসন সমীকরণ নক্ষত্রের রাসায়নিক ও ভৌত ধর্মাবলি ব্যাখ্যায় ব্যবহৃত হয়।
সত্যেন্দ্রনাথ বসু
সত্যেন্দ্রনাথ বসু (১ জানুয়ারি ১৮৯৪ – ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪) ছিলেন এক জন পদার্থবিজ্ঞানী। তাঁর গবেষণার ক্ষেত্র ছিল গাণিতিক পদার্থবিদ্যা।
স্যার চন্দ্রশেখর ভেঙ্কটরমন
ভারতীয় উপমহাদেশের যে কোনও বিজ্ঞান-শিক্ষার্থীই স্যার চন্দ্রশেখর ভেঙ্কটরমন বা সি ভি রমনের নাম শুনেছেন। তাঁর আবিষ্কৃত ‘রমন এফেক্ট বা ‘রমন-প্রভাব’ পদার্থবিজ্ঞানের জগতে এক আশ্চর্য মাইলফলক হয়ে আছে ১৯২৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে – যে দিন এই আবিষ্কারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়েছিল।
শ্রীনিবাস কৃষ্ণণ
পদ্মভূষণ আচার্য কারিয়ামানিক্যম শ্রীনিবাস কৃষ্ণণ (কে এস কৃষ্ণণ নামেই বেশি পরিচিত), ফেলো অব দ্য রয়্যাল সোসাইটি এক জন ভারতীয় পদার্থবিজ্ঞানী।
জগদীশচন্দ্র বসু
স্যার জগদীশচন্দ্র বসু (নভেম্বর ৩০, ১৮৫৮ – নভেম্বর ২৩, ১৯৩৭) এক জন বাঙালি পদার্থবিদ, উদ্ভিদবিদ ও জীববিজ্ঞানী এবং প্রথম দিকের এক জন কল্পবিজ্ঞান রচয়িতা। তাঁর গবেষণা উদ্ভিদবিজ্ঞানকে সমৃদ্ধ করে তোলে এবং ভারতীয় উপমহাদেশে ব্যবহারিক ও গবেষণাধর্মী বিজ্ঞানের সূচনা করে।
ন্যাভিগেশন
Back to top