হোম / শক্তি / ওঁরা কী বলেন / জ্বালানি, পরিবেশ ও নিরন্তর উন্নয়ন / শক্তির ঘনত্ব ও প্রাথমিক জ্বালানি
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

শক্তির ঘনত্ব ও প্রাথমিক জ্বালানি

দেশে মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট অনুপাতের ভিত্তিতে স্থির করা হয় শক্তির ঘনত্ব।

জীবাশ্ম থেকে জ্বালানি সংগ্রহের কাজে প্রাকৃতিক সম্পদের ক্ষয় হয়। জ্বালানি থেকে প্রয়োজনীয় শক্তি উৎপাদন প্রক্রিয়ায় পরিবেশ দূষণের ঘটনা ঘটে। আবার জলবিদ্য‌ুতের ক্ষেত্রে বনভূমিকে কাজে লাগাতে হয়। ফলে ওই অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষদের পুনর্বাসনের ব্য‌বস্থা করতে হয়। অন্য‌ দিকে পরমাণু শক্তির ক্ষেত্রে নিরাপত্তার বিষয়টি একটি গুরুত্বপূর্ণ নীতি সংক্রান্ত বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

বায়োমাসের মতো একটি পুনর্ব্য‌বহারযোগ্য‌ জ্বালানি উৎস ব্য‌বহারের ক্ষেত্রে আবার কৃষি উৎপাদন ব্য‌াহত হয়। সুতরাং জাতীয় পরিস্থিতি নীতি সংক্রান্ত অগ্রাধিকার, ব্য‌য় এবং সম্ভাব্য‌তার দিকগুলি বিবেচনা করেই কোনও দেশের শক্তি সংক্রান্ত মূল বিষয়টি সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিতে হয়।

দেশে মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট অনুপাতের ভিত্তিতে স্থির করা হয় শক্তির ঘনত্ব। ভারতে শক্তির ঘনত্ব ১৯৮১ সালের ১.০৯ থেকে কমে ২০১১ সালে দাঁড়ায় ০.৬২। অন্য‌ দিকে ২০১০ সালে ব্রিটেনে যেখানে শক্তির ঘনত্ব ছিল ০.১০২, জার্মানিতে ০.১২১, আমেরিকায় ০.১৭৩ এবং চিন ০.২৮৩, ভারতে সে ক্ষেত্রে ছিল ০.১৯১। সুতরাং জ্বালানি সাশ্রয়কারী প্রযুক্তির সাহায্য‌ে এবং অন্য‌ান্য‌ ব্য‌বস্থা গ্রহণের মাধ্য‌মে শক্তির ঘনত্বকে কমিয়ে ফেলা যায়। সারণি ১-এ দেশের প্রাথমিক জ্বালানির জোগানের একটি চিত্র তুলে ধরা হল।

উৎস থেকে প্রাথমিক জ্বালানির জোগান

উৎস

২০০০-০১ (মেট্রিক টন)

২০২১-২২ (মেট্রিক টন)

২০০০-০১

শতাংশ

২০২১-২২ শতাংশ

অভ্য‌ন্তরীণ বাণিজ্য‌িক উৎস

২০৬.৪৫

৬৪২.০০

৪৭.৭২

৫২.৬৪

দেশীয় অবাণিজ্য‌িক উৎস

১৩৬.৬৪

২০২.১৬

৩১.৫৯

১৬.৫৭

নিট আমদানি

৮৯.০১

৩৭৫.৬০

২০.৫৮

৩০.৭৯

মোট

৪৩২.৬১

১২১৯.৭১

১০০

১০০

সূত্র : যোজনা কমিশনের তথ্য

দেশের জাতীয় বাণিজ্যক্ষেত্রে জ্বালানি সরবরাহের একটি প্রেক্ষিত পরিষ্কার হয়ে উঠবে সারণি ২ থেকে।

অভ্য‌ন্তরীণ প্রাথমিক বাণিজ্য‌িক জ্বালানি

 

 

২০০০-০১

২০২১-২২

শতাংশ ২০০০-০১

শতাংশ ২০২১-২২

কয়লা ও লিগনাইট

১৩৭.০৪

৪২৯.০০

৬৬.৩৮

৬৬.৮২

অশোধিত তেল

৩৩.৪০

৪৩.০০

১৬.১৮

.৭০

প্রাকৃতিক গ্য‌াস

২৫.০৭

১০৩.০০

১২.১৪

১৬.৪৯

জলবিদ্য‌ুৎ

.৪০

৬৭.০০

.১০

.৬৫

পরমাণু শক্তি

.৪১

৩০.০০

.১৪

.৬৭

পুনর্ব্য‌বহারযোগ্য‌ জ্বালানি

.১৩

২০.০০

.০৬

.১২

মোট

২০৬.৪৫

৬৪২.০০

১০০

১০০

সূত্র : যোজনা কমিশনের তথ্য

পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্য‌াসের তুলনায় ভারতে অপেক্ষাকৃত প্রাচুর্য রয়েছে কয়লা ও লিগনাইটের। আর তা থেকেই পাওয়া যায় শক্তি বা জ্বালানি নিরাপত্তা।

সূত্র : যোজনা, মে ২০১৪

2.89655172414
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top