হোম / স্বাস্থ্য / নীতি ও প্রকল্প
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

নীতি ও প্রকল্প

পশ্চিমবঙ্গের প্রকল্প
স্বাস্থ্য পরিষেবায় জনগণের নানা চাহিদা মেটাতে পশ্চিমবঙ্গের প্রকল্পের কথা থাকছে এখানে।
স্বাস্থ্য‌বিমায় আগ্রহ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গের
সর্বভারতীয় বণিকসভা অ্য‌াসোচেমের সমীক্ষায় জানা গেছে, স্বাস্থ্যবিমার ক্ষেত্রে ে রাজ্যের স্থান এখন চার নম্বরে।
পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য পরিষেবায় নানা পরিকল্পনা
পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজতে ২০১২ সালে সদ্য ক্ষমতায় আসা সরকার তৈরি করেছিল মাল্টি ডিসিপ্লিনারি এক্সপার্ট গ্রুপ। সেই গ্রুপের চেয়ারম্যান হয়েছিলেন ডাঃ সুব্রত মৈত্র। তার পর দু’টো বছর কেটেছে। স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে ঢেলে সাজতে কী পরিকল্পনা করেছিল বিশেষজ্ঞ গোষ্ঠী, সেই পরিকল্পনার কতটাই বা ছোঁয়া গেছে? স্বাস্থ্য পরিকল্পনা নিয়ে গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান ডাঃ সুব্রত মৈত্র কথা বললেন বিকাশপিডিয়ার প্রতিনিধির সঙ্গে।
ওষুধ রাখার নয়া নির্দেশিকা
সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ড্রাগ স্টোরে কত তাপমাত্রায় ওষুধ রাখতে হবে সে সম্পর্কে নির্দেশিকা জারি করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সেই খবর এখানে।
সিউড়িতে চালু হল প্রিপেড অ্যাম্বুল্যান্স
পরিষেবা উন্নত করতে প্রিপেড অ্যাম্বুল্যান্স চালু হল সিউড়ি সদর হাসপাতালে। সেই খবর এখানে।
সরকারি ব্লাড ব্যাঙ্ক এ বার আলাদা বিভাগ, নয়া নির্দেশিকা
স্বাস্থ্যভবনের নয়া নির্দেশিকা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গের সরকারি ব্লাড ব্যাঙ্ক এ বার থেকে আলাদা বিভাগ হিসাবে কাজ করবে।
জাতীয় স্বাস্থ্য মিশন (এনএইচএম)
ভারত সরকারের জাতীয় স্বাস্থ্য মিশন এবং তার বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।
ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া জানাতে টোল ফ্রি নম্বর
কোনও ওষুধ থেকে কোনও রকম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা সমস্যা হলে তা সরাসরি জানানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার একটি টোল ফ্রি নম্বর (১৮০০১৮০১০২৪) চালু করেছে। সেই সংক্রান্ত বিস্তারিত খবর এখানে।
স্বাস্থ্য পরিষেবায় যুক্তদের জন্য তৈরি হচ্ছে রেজিস্টার
স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে যুক্ত সকলের নাম নথিভুক্তি করছে পশ্চিমবঙ্গ।
সুপার স্পেশ্যালিটি হচ্ছে ওয়ালশ, বরাদ্দ ৫০ কোটি
শ্রীরামপুর ওয়ালশ হাসপাতাল ‘সুপার স্পেশালিটি’ হাসপাতালে উন্নীত হচ্ছে।
ন্যাভিগেশন
Back to top