হোম / স্বাস্থ্য / নীতি ও প্রকল্প / জাতীয় স্বাস্থ্য কর্মসূচি / অসংক্রামক এবং সংক্রামক রোগ / সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি (রিভাইসড ন্যাশনাল টিউবারকিউলোসিস কন্ট্রোল প্রোগ্রাম)
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি (রিভাইসড ন্যাশনাল টিউবারকিউলোসিস কন্ট্রোল প্রোগ্রাম)

ভারতে টিবি মৃত্যুর একটি অন্যতম কারণ।

ভারতে টিবি মৃত্যুর একটি অন্যতম কারণ। গত ৩৫ বছরে সরাসরি পযর্বেক্ষণের মাধ্যমের চিকিৎসা, ওষুধের শর্ট কোর্সের (ডট) উপর ভিত্তি করে বিস্তারিত গবেষণা চালানো হয়েছে। ১৯৯৭ সাল থেকে ‘ডটস’-এর সফল পাইলটিং-এর পর সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচিতে নিরাময়ের হারের ক্ষেত্রে আগের কর্মসূচির তুলনায় দ্বিগুণ সাফল্য পাওয়া গেছে। ভারতে ডটস প্রয়োগের ফলে ১০ জনের মধ্যে ৮ জন রোগী সুস্থ হয়েছে। সেই তুলনায় আগের কর্মসূচিতে দশ জন রোগীর মধ্যে মাত্র তিন জন সুস্থ হত। তা ছাড়া মাল্টিড্রাগ চিকিৎসার তুলনায় অনেক ভালো ফল পাওয়া গেছে ডটস চিকিৎসায়। সাধারণ ভাবে এইচআইভি আক্রান্তের টিবি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। ২০০৬-এর মার্চ মাসে সংশোধিত যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির আওতায় দেশের সমস্ত জনসংখ্যাকে আনা সম্ভব হয়েছে। এর ফলে যিনি সুস্থ হয়েছেন, তার থেকে টিবি-র সংক্রমণ বন্ধ হয়েছে। মা-বাবা, শিশু সন্তান প্রত্যেকেই টিবি মুক্তি জীবনযাপনে সক্ষম হয়েছে।

লক্ষ্য

সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির লক্ষ্য হল :

  • নতুন সংক্রমণের ক্ষেত্রে ৮৫ শতাংশ নিরাময়ের হার বজায় রাখা
  • এই ক্ষেত্রে ৭০ শতাংশ সনাক্তকরণ বজায় রাখা

আরএনটিসিপি-র অনন্য বৈশিষ্ট্য :

  • জেলা টিবি নিয়ন্ত্রণ সোসাইটি
  • মডুলার প্রশিক্ষণ
  • রোগীভিত্তিক বাক্স
  • উপ-জেলা স্তরে তত্ত্বাবধান কর্মী চিকিৎসা এবং মাইক্রোস্কোপির জন্য
  • শক্তসমর্থ রিপোর্টিং এবং রেকর্ডিং সিস্টেম

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন : http://www.tbcindia.nic.in

2.94444444444
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top