হোম / স্বাস্থ্য / রোগ ও প্রতিরোধ / কুষ্ঠ রোগ / প্রায়শই জিজ্ঞাস্য প্রশ্নাবলি
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

প্রায়শই জিজ্ঞাস্য প্রশ্নাবলি

কুষ্ঠ রোগ নিয়ে সাধারণের কিছু প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়েছে এখানে।

প্রশ্ন ১ : কাদের কুষ্ঠ রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেশি ?

উত্তর : কুষ্ঠ রোগ যে কোনও বয়সেই হতে পারে। তবে ৫-১৫ বছর বয়সি অথবা ৩০ বছরের বেশি বয়সিদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।

প্রশ্ন ২ : কুষ্ঠ রোগ কয় ধরনের হয় ?

উত্তর : শরীরের যে সব জায়গায় ত্বক আক্রান্ত হয়েছে তার উপর নির্ভর করে কুষ্ঠ রোগকে দু’ ভাগে ভাগ করা যায়। যথা :

  • পসিব্যাসিলারী : ত্বকের পাঁচটি জায়গায় বা এর চেয়ে কম জায়গা আক্রান্ত হয়।
  • মাল্টিব্যাসিলারী : ত্বকের ছয়টি বা এর চেয়ে বেশি জায়গা আক্রান্ত হয়।

রোগের উপসর্গের উপর নির্ভর করে কুষ্ঠ রোগকে তিন ভাগে ভাগ করা যায়। যথা :

  • টিউবারকিউলয়েড কুষ্ঠ
  • লেপ্রোমেটাস কুষ্ঠ
  • বর্ডারলাইন কুষ্ঠ

প্রশ্ন ৩ : কুষ্ঠ রোগের ফলে কী কী জটিলতা দেখা দিতে পারে?

উত্তর : কুষ্ঠ রোগের ফলে নীচের জটিলতাগুলো দেখা দেয় :

  • পায়ের নীচের দিকে ক্ষত সৃষ্টি হতে পারে, যার ফলে হাঁটতে গেলে পায়ে ব্যথা করে
  • নাসিকাতে ক্ষতের কারণে নাকে সমস্যা হতে পারে এবং নাক থেকে রক্তপাত হতে পারে, এমনকী নাক ক্ষয়ে যেতে পারে
  • চোখের ক্ষতির কারণে গ্লুকোমা অথবা অন্ধত্ব হতে পারে
  • পুরুষদের লেপ্রোমেটাস কুষ্ঠ হলে  শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে ব্যর্থ এবং সন্তান জন্মদানে তারা অক্ষম হন
  • কিডনির কার্যকারিতা নষ্ট হয় যায়

তথ্যসূত্র : http://infokosh.plandiv.gov.bd/atricle/কুষ্ঠ-রোগ

3.0406504065
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top