ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

প্রবীণদের পুষ্টি সমস্যা

প্রবীণ বয়সে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

প্রবীণ বয়সে সঠিক মাত্রায় পুষ্টিসম্পন্ন ও সুষম খাবারের প্রয়োজন খুবই বেশি। কারণ, পুষ্টিহীনতা বা সঠিক মাত্রায় পুষ্টিসম্পন্ন খাবার না খেলে তাঁদের শরীর ও স্বাস্থ্য রোগাক্রান্ত হবে। আবার তেমনই অতিমাত্রায় পুষ্টিও তাঁদের জন্য নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা তৈরি করে।

খাদ্য ও পুষ্টি

খাদ্য

সুস্থ শরীর বজায় রাখার জন্য আমরা যা কিছু খাই তা-ই খাদ্য।

খাদ্যের কাজ:

  • শরীরে তাপশক্তি ও কর্মক্ষমতা জোগানো
  • শরীর গঠন ও বৃদ্ধিসাধন এবং ক্ষয়পূরণ
  • শরীর রোগমুক্ত রাখা
  • অসুস্থ শরীরকে আরোগ্য লাভে সহায়তা করা

পুষ্টি

পুষ্টি এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে গ্রহণ করা খাদ্য পরিপাক ও শোষিত হয়ে শরীরে তাপ ও শক্তি জোগায়, শরীরের বৃদ্ধিসাধন করে রোগ থেকে মুক্ত রাখে, ক্ষয়পূরণ করে এবং সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

বার্ধক্যে পুষ্টির গুরুত্ব

  • বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গে নানা ধরনের পরিবর্তন আসে। তার সঙ্গে সমন্বয় রেখে খাদ্য ও পুষ্টিতে পরিবর্তন করার দরকার হয়।
  • বার্ধক্যে বিশেষ করে হাড়, হৃদপিণ্ড, শিরা, ধমনী, যকৃৎ, কিডনি, চোখ, চামড়া সহ প্রায় সকল প্রকার অঙ্গ প্রত্যঙ্গের কার্যকারিতা হ্রাস পাওয়া শুরু হয়।
  • মস্তিষ্কেও কোষের সংখ্যা কমতে থাকে, সেই সাথে সাথে দেখা দেয় বার্ধক্যজনিত নানান জটিল রোগ, ব্যাধি।
  • খাদ্যে শোষণ ক্ষমতা মেটাবলিজম কমতে থাকে।
  • এই সমস্ত কারণে বৃদ্ধ বয়সে খাদ্য নিয়ন্ত্রণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই সঙ্গে পুষ্টির মাত্রা সঠিক হওয়া চাই।
  • মহিলাদের রজ:নিবৃত্তির পর হাড় ভঙ্গুর হয়ে যেতে পারে। পরিমিত ক্যালসিয়ামপূর্ণ খাদ্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে হবে।

তথ্যসূত্র : http://infokosh.gov.bd/atricle/প্রবীণদের-পুষ্টি ও অন্যান্য ওয়েব সাইট

3.02884615385
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top