ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

প্রতিরোধ

কী ভাবে ঠেকানো যেতে পারে হাঁপানি তা এখানে বোঝানো হয়েছে।

  • অর্ধেক বা তার বেশি সংখ্যক বাচ্চাদের হাঁপানি বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেরে যায়। যাদের ক্ষেত্রে রোগটি বাড়াবাড়ি রকমের আছে, বড় হওয়ার পরেও তাদের রোগটি থেকে যাওয়ারই সম্ভাবনা। রোগের প্রকোপ থেকে যাওয়ার এবং পুনরাবৃত্তি হওয়ার ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়গুলির মধ্যে আছে ধূমপান, কম বয়সে হাঁপানি হওয়া এবং বাড়ির ধূলিকণায় সংবেদনশীলতা।
  • বাচ্চাদের ক্ষেত্রে উদ্দীপক পদার্থ এড়াতে পারলে হাঁপানির বাড়াবাড়ি আটকানো যায়। অ্যালার্জি থাকা বাচ্চাদের অভিভাবককে সাধারণত পালকের বালিশ, কার্পেট, ঝালর লাগানো জামাকাপড়, ধুলোপড়া আসবাবপত্র, তুলো ভর্তি খেলনা এবং যে সব জায়গায় ধুলো হতে পারে সেগুলো বর্জন করতে পরামর্শ দেওয়া হয়।
  • যে বাচ্চার হাঁপানি আছে, পরোক্ষ ধূমপান প্রায়শই তার লক্ষণগুলি প্রকট করে তোলে। তাই যে এলাকায় শিশুটি সময় কাটায়, সেখানে ধূমপান করা বন্ধ করা দরকার। যদি কোনও একটি বিশেষ অ্যালারজেন এড়ানো সম্ভব না হয়, ডাক্তারবাবু অ্যালার্জি প্রতিরোধকারী ওষুধ প্রয়োগের মাধ্যমে শিশুটির ওটির প্রতি সংবেদনশীলতা কম করাতে পারেন, যদিও হাঁপানিতে এর উপকারিতার কথা খুব একটা ভালো জানা নেই।
  • যে হেতু ব্যায়াম একটি বাচ্চার বিকাশের পক্ষে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, ডাক্তারবাবুরা সাধারণত বাচ্চাদের শারীরিক কাজকর্ম, শরীরচর্চা এবং খেলাধূলায় অংশগ্রহণ চালিয়ে যেতে উৎসাহ দেন এবং শরীরচর্চার আগে হাঁপানির ওষুধ ব্যবহারের নির্দেশ দেন।
2.99259259259
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top