হোম / খবর / ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড এবার রেশন দোকানেও
ভাগ করে নিন

ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড এবার রেশন দোকানেও

চাল , গম , সাবান , চিনি , বিস্কুট কিনতে অচিরেই নগদের পরিবর্তে ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ডে বিল মেটানো যাবে৷ এমনকী , আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পিওএস -এ আধার ভিত্তিক লেনদেনও করা যাবে রেশন দোকান ছাড়াও সারের ডিপোগুলিতে৷

চাল , গম , সাবান , চিনি , বিস্কুট কিনতে অচিরেই নগদের পরিবর্তে ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ডে বিল মেটানো যাবে৷ এমনকী , আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পিওএস -এ আধার ভিত্তিক লেনদেনও করা যাবে রেশন দোকান ছাড়াও সারের ডিপোগুলিতে৷ কেন্দ্রীয় অর্থসচিব অশোক লাভাসা জানিয়েছেন , ইতিমধ্যেই রেশন দোকানগুলিতে ১ লক্ষ ৭০ হাজারেরও বেশি পিওএস (পয়েন্ট অফ সেলস্) মেশিন বসানো হয়েছে এবং আগামী কয়েক মাসে আরও মেশিন বসানো হবে৷ তিনি বলেন , ‘খাদ্য ও অসামরিক সরবরাহ দন্তর এবং সার দন্তর --- উভয় দন্তরই রেশন দোকান ও সারের ডিপোগুলিতে পিওএস মেশিন বসানোর প্রকল্প হাতে নিয়েছে৷ এই মেশিনগুলি আধার -ভিত্তিকও হবে৷ ’দেশের টিয়ার - ৫ ও ৬ এলাকায় এক লক্ষ গ্রামে প্রতি গ্রাম পিছু দুটি পিওএস মেশিন বসানোর জন্য ফিনান্সিয়াল ইনক্লুশন ফান্ড থেকে ব্যাঙ্কগুলিকে সহায়তা দিচ্ছে ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ফর এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট৷ খরচ কমার ক্ষেত্রে ডিজিটাল লেনদেন কতটা প্রভাব ফেলেছে ? লাভাসার জবাব , ‘এখনও সেই পর্যালোচনা করার সময় আসেনি৷ আমি মনে করি আমাদের গোটা ব্যবস্থাকে পর্যান্ত সময় দিতে হবে , হয়তো এক বছর৷ তার পরেই আমরা দেখতে পাব , কতটা আমরা লাভবান হয়েছি৷ ’তাঁর দাবি , ডিজিটালাইজেশনের দিকে যে গোটা দেশ অগ্রসর হচ্ছে , তার প্রমাণ ভিম ও ইউপিআই অ্যাপ ডাউনলোড করতে যে ভাবে প্রতি দিন মানুষের সংখ্যা বাড়ছে৷ একই ভাবে অন্যান্য পরিষেবা প্রদানকারীদের অ্যাপও ডাউনলোডের সংখ্যা ও প্রবণতা উত্তরোত্তর বাড়ছে৷ পরিসংখ্যান দিয়ে লাভাসার মন্তব্য , ‘উদাহরণ হিসাবে বলছি , কত সংখ্যায় পিওএস মেশিন বিক্রি হয়েছে৷ এক লক্ষ ৭০ হাজারেরও বেশি রেশন দোকানে ইতিমধ্যেই পিওএস মেশিন বসেছে৷ প্রচুর ব্যাঙ্কিং করেসপন্ডেন্টরাও এখন পিওএস মেশিন ও মাইক্রো এটিএম পেয়েছেন৷ আপনারা যদি পিওএস মেশিন নির্মাতা এবং যাঁরা এই মেশিনের জন্য বরাত দিয়েছেন , তাঁদের সঙ্গে কথা বললেই বুঝবেন চাহিদা প্রচুর৷ শুধুমাত্র ব্যাঙ্কগুলিই প্রায় ১০ লক্ষ পিওএস মেশিনের বরাত দিয়েছে৷ ফলে , আমি মনে করি এমন একটা পরিস্থিতির দিকে আমরা এগোচ্ছি , যেখানে অর্থনীতির বৃহত্তর ডিজিটালাইজেশন ঘটবে৷ ’ তিনি জানান , বর্তমানে রেলের ৬৮ শতাংশ বুকিং -ই ডিজিটাল মাধ্যমে হচ্ছে৷ গত ৯ নভেম্বরের পর সারা দেশে পিওএস মেশিনের চাহিদা বিপুল বেড়েছে৷ বিমুদ্রাকরণের সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করার পর এযাবত্ ২ লক্ষ ৫২ হাজার নতুন পিওএস মেশিন বসেছে৷ পিওএস জালিয়াতি বন্ধ করতে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ইতিমধ্যেই একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করেছে এবং ব্যাঙ্কগুলিকে বলেছে , তাদের ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডে আরও সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য যুক্ত করতে৷ অন্য দিকে , রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে কেন্দ্রীয় সরকার পরামর্শ দিয়েছে , পিওএস মেশিনের ভাড়ার কাঠামো এমন করতে যাতে একজন ছোট ব্যবসায়ীকে মাসে কোনও ভাবেই ১০০ টাকার বেশি ভাড়া না দিতে হয়৷ ডিজিটাল লেনদেনে উত্সাহ দিতে এগিয়ে এসেছে নাবার্ডও৷ আধার -ভিত্তিক পেমেন্ট ব্যবস্থায় বিক্রেতা পেমেন্ট নিলে তাঁদের ০ .৫ শতাংশ ইনসেনটিভ দেওয়ার একটি প্রকল্প ইতিমধ্যেই তারা মঞ্জুর করেছে৷

সূত্র: এই সময়

Back to top