ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

দফতর ও অধিকার

কোন দফতরের দায়িত্ব ও কী অধিকার পাওয়া যায় তা এখানে জানানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট দফতর

কেন্দ্রীয় সরকার

গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক। (ওয়েবসাইট দেখুন-গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক)

পশ্চিমবঙ্গ সরকার

পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর। (ওয়েবসাইটের জন্য‌ ক্লিক করুন-পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর)

অধিকার

সেরা সূত্র : সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ-এখানে ক্লিক করুন

  • (ক) মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান নিশ্চয়তা আইন (এমজিএনরেগা)
    • প্রতিটি গ্রামীণ পরিবারকে বছরে ১০০ দিনের কাজের ব্য‌বস্থা করে দেওয়া (১৮ বছরের উপরের যে কেউ)
    • ১৫ দিনের মধ্য‌ে কাজ পাওয়া।
    • আবেদনকারী যে ব্লকে বসবাস করেন সেখানেই কাজ পাওয়ার অধিকারী। পাঁচ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বে কাজ দিলে যাতায়াতের জন্য‌ খরচ দিতে হবে।
    • নির্ধারিত ন্যূনতম মজুরি দিতে হবে, কিন্তু কোনও মতেই তা দৈনিক ১২২ টাকার কম নয়। তাঁর বাড়ির কাছাকাছি ব্য‌াঙ্কে বা পোস্ট অফিসে তাঁর অ্য‌াকাউন্টে এই টাকা জমা পড়বে। যেখানে কাছাকাছি ব্য‌াঙ্ক বা পোস্ট অফিস নেই সেখানেই একমাত্র নগদে টাকা দেওয়া যেতে পারে।
    • কাজের ১৪ দিনের মধ্য‌ে ব্য‌াঙ্ক বা পোস্ট অফিস অ্য‌াকাউন্টে মজুরির টাকা জমা করতে হবে।
    • আবেদন করার ১৫ দিনের মধ্য‌ে কোনও কাজ না পেলে বেকার ভাতা পাওয়ার যোগ্য‌ বলে বিবেচিত হবেন। প্রথম ৩০ দিনের জন্য‌ মজুরির ৩৩ শতাংশ এবং তারপর থেকে ৫০ শতাংশ বেকার ভাতা হিসাবে দেওয়া হবে।
    • কাজের জায়গায় খাবার জল, বাচ্চা রাখার ব্য‌বস্থা, বিশ্রামের জন্য‌ শেড রাখতে হবে।
    • প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ নাগরিকদের জন্য‌ উপযুক্ত কাজের ব্য‌বস্থা করে দিতে হবে।
    • এমজিএমএনরেগা প্রকল্পে কাজ করার সময় মৃত্য‌ু হলে বা বরাবরের মতো শারীরিক দিক দিয়ে অক্ষম হয়ে পড়লে ২৫ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে।
    • এমজিএমএনরেগার জব কার্ড থাকলে বাড়িতে শৌচাগার তৈরি করার জন্য‌ ১০ হাজার টাকা পাবেন। ক্লিক করুন এখানে
    • এমজিএমএনরেগার কর্মীরা নিম্নলিখিত সুবিধা পাবেন --
      • জনশ্রী বিমা যোজনা অনুসারে সারা জীবনের জন্য‌ ও চিরস্থায়ী অক্ষমতার জন্য‌ বিমার সুবিধা পাবেন।
      • যাঁরা আগের আর্থিক বছরে অন্তত ১৫ দিন কাজ করেছেন তাঁদের জন্য‌ রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য‌ বিমার সুযোগ।
  • (খ) সম্পূর্ণ গ্রামীণ রোজগার যোজনা (এসজিআরওয়াই) (ওয়েবসাইটের জন্য‌ এখানে ক্লিক করুন।)
    • গ্রাম পঞ্চায়েতের মাধ্য‌মে, বিশেষ করে বিশেষ করে তফসিলি জাতি ও উপজাতি এলাকায় রাস্তাঘাটের উন্নয়ন।
    • স্থানীয় গরিব মানুষ নিজেরাই কাজ করবেন। কোনও ঠিকাদার নিয়োগ করা হবে না।
    • কর্মীরা ৫ কেজি করে খাদ্য‌শস্য ও মজুরির অন্তত পক্ষে ২৫ শতাংশ নগদে পাবেন।
3.01724137931
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top