ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

সোহম চক্রবর্তী

তিন বছর বয়সে মাস্টার বিট্টু চরিত্রে অভিনয় করে অসংখ্য দর্শকের হৃদয় জয় করে নেন।

সোহম চক্রবর্তী একজন জনপ্রিয় অভিনেতা। ১৯৮৪ সালের ৪ মার্চ কলকাতায় তাঁর জন্ম। তিনি শিশুশিল্পী হিসেবে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু করলেও বর্তমানে তিনি নায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। তিন বছর বয়সে তিনি মাস্টার বিট্টু চরিত্রে অভিনয় করে অসংখ্য দর্শকের হৃদয় জয় করে নেন। এর পর তিনি চাঁদের বাড়ি ছবিতে প্রথম প্রাপ্তবয়স্ক চরিত্রে অভিনয় করেন, যদিও এটা তার পক্ষে বেশ কঠিন ছিল। তিনি কঠোর পরিশ্রমের পর রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত প্রেম আমার (২০০৯) ছবিতে পায়েল সরকার-এর বিপরীতে অভিনয় করার মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তাঁর আরেকটি জনপ্রিয় ছবি হল অমানুষ। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের চলচ্চিত্র জগতে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়।

অভিনয় জীবন

তিনি ১৯৮৮ সালে বাংলা ছবি ছোট বউ ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন। তখন তার ২ বছর ১/২ মাস বয়স ছিল। পরবর্তিতে তার প্রথম মুখ্য ভূমিকায় ছবি চাঁদের বাড়ি। তার পরের ছবি বাজিমাৎ বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। পরবর্তিতে তিনি বলেন যা তিনি কখনওই আশা করেননি যা তিনি আবার উঠে দাঁড়াতে পারবেন, তাঁর বাজিমাত-এর ফ্লপ হওয়ার পরে। কিন্তু তাঁর অভিনীত পরের ছবি প্রেম আমার (২০০৯) মারাত্মক বাণিজ্যিক সাফল্য লাভ করে। এর পর তিনি জিনা, রহস্য, সোলজার প্রভৃতি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, কিন্তু তার কোনটাই বাণিজ্যিক সাফল্য লাভ করেনি। তার পরের ছবি অমানুষ। এই ছবিতে তিনি বিনোদ নামক এক অনাথের চরিত্রে অভিনয় করেন। এই ছবিও সাফল্যমন্ডিত হয়। পরবর্তীতে রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত বোঝেনা সে বোঝেনা চলচ্চিত্রে তিনি চমৎকার অভিনয় করেন। তিনি বাংলা চলচ্চিত্রের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। বর্তমানে সোহম নিজে প্রযোজক হয়ে ওঠার প্রক্রিয়ায় রয়েছেন। অনেকে মনে করেন, পছন্দ মতো সিনেমায় সুযোগ না পাওয়ার জন্যই তার এই উদ্যোগ। অন্যদিকে বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পের অনেকের ধারণা, অভিনয় প্রতিভায় তিনি সমকালীন অনেক নায়কের তুলনায় এগিয়ে।

সূত্র: উইকিপিডিয়া

2.96428571429
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top