হোম / কৃষি / পোলট্রি / ডিম উৎপাদনে পশ্চিমবঙ্গে উৎসাহভাতা
ভাগ করে নিন

ডিম উৎপাদনে পশ্চিমবঙ্গে উৎসাহভাতা

ডিমের উৎপাদন বাড়াতে বিশেষ উৎসাহভাতা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ।

ডিম উৎপাদনের ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ ৮% বৃদ্ধির হার অর্জন করলেও, প্রয়োজনের তুলনায় এখনও রাজ্যে ডিম উৎপাদন কম। জোগান ও চাহিদার মধ্যে পার্থক্য কমাতে এবং ডিমের উৎপাদন বাড়াতে একটি উৎসাহভাতার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে প্রাণিসম্পদ বিকাশ দফতর। দফতরের অনুমোদন কমিটির ২৭.০৮.২০১৩ তারিখের বৈঠকে এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

এই পরিকল্পনায় বাণিজ্যিক ভাবে ১০০০০ মুরগি উৎপাদনের জন্য উৎসাহভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ডিম উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরি, যেমন, ডিমে তা দেওয়া, বৃদ্ধি ও ডিম রক্ষণাবেক্ষণের নির্দিষ্ট স্থান প্রস্তুতির জন্য ইতিমধ্যেই ৯৬ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

প্রকল্পের ১০ শতাংশ টাকা উৎসাহভাতা হিসেবে দেওয়া হবে (উর্ধ্বসীমা ৮ লক্ষ)। প্রকল্পের জন্য অন্তত দেড় একর জায়গা রয়েছে, এমন কৃষক, উদ্যোগপতি, স্বনির্ভর গোষ্ঠী, কোঅপারেটিভ সোসাইটি এই উৎসাহভাতা পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করবে। অনুমোদিত আর্থিক প্রতিষ্ঠান/ জাতীয়/বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কই কেবলমাত্র প্রকল্পটিতে সিলমোহর দিতে পারবে।

প্রকল্পটি বাস্তবনিষ্ঠ হতে হবে এবং এর সম্ভাবনা সংক্রান্ত প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট আধিকারিক দ্বারা অনুমোদিত হতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট সব আধিকারিকের কাছ থেকে ছাড়পত্র মিলতে হবে। যিনি উৎসাহভাতা চাইছেন তাঁকে কমপক্ষে ১০০০০ মুরগি উৎপাদনের ক্ষমতা এবং যাবতীয় পরিকাঠামো থাকার ছাড়পত্র পেতে হবে উপযুক্ত দফতরের কাছ থেকে। একই সঙ্গে আবেদন জমা দেওয়ার সময় গত ৩৬৫ দিনে মুরগি পিছু ৩০০টি করে ডিম উৎপাদন যে হয়েছে, তার প্রমাণও দিতে হবে। কতগুলি পাখি আছে, কতগুলি ডিম উৎপাদন হয়েছে এবং পরিকাঠামো নির্মাণ করা হয়েছে, সে সংক্রান্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট জেলার উপ অধিকর্তা, এআরডি ও পিও-র থেকে শংসাপত্র পেতে হবে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যেমন, গ্রাম প্রধান, পুরসভার চেয়ারপার্সন, রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের আধিকারিকের নো অবজেকশন সার্টিফিকেটের প্রত্যায়িত নকল, ট্রেড লাইসেন্স, জমির দলিল, রাজস্ব/প্যান/ভোটার কার্ড ইত্যাদির ফটোকপি, ব্যাঙ্কের নাম ঠিকানা, অ্যাকাউন্ট নম্বর, আইএফএস কোড ইত্যাদিও আবেদনপ৬এর সঙ্গে জমা দিতে হবে।

প্রথম সারির দৈনিক সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিয়ে আবেদন চাওয়া হবে, আবেদন করতে হবে এই ঠিকানায়-

the Director of Animal Animal Husbandry & Veterinary Services,

West Bengal LB-2 SECTOR-III, Salt lake city,

Kolkata- 700098

 

 

 

যারা ইতিমধ্যেই উৎসাহভাতা পেয়েছেন, তাঁদের বিবেচনা করা হবে না। ব্যবসা বাড়ানোর ক্ষেত্রে উৎসাহভাতা দেওয়া হবে না। নথি/প্রতিবেদন যাচাই করার পর এআরডি দফতরের যুগ্ম সচিব, দফতরের আর্থিক উপদেষ্টা, পশু পালন ও পশু চিকিৎসা দফতরের অধিকর্তা, প্রাণিবিকাশ কপোর্রেশনের এমডি-কে নিয়ে গঠিত একটি বাছাই কমিটি ভাতা দেওয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। তহবিলের উপর নির্ভর করে মাত্র এক বারই এক জনকে উৎসাহভাতা দেওয়া হবে। এই বাছাই কমিটি কোনও কারণ না দেখিয়েই যে কোনও আবেদন বাতিল করতে পারেন। প্রয়োজনে অন্য শর্তও যুক্ত হতে পারে।

সূত্র : এআর ও এএইচ(এসসিএইচ) শাখা, প্রাণিসম্পদ বিকাশ দফতর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার

2.96341463415
Niranjan Mondal Jan 03, 2017 08:20 PM

সোনালী জাতির মুরগী বাচ্চা কোথায় পাওয়া যাবে একটু জানাবেন ফোন নাম্বার 81*****40

মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
Back to top