ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

চোখের সাধারণ কিছু সমস্যা

চোখের সাধারণ কিছু সমস্যা নিয়ে এখানে আলোচনা করা হয়েছে।

ডাবল ভিশন বা ডিপ্লোপিয়া

  • এক চোখে ডাবল ভিশন হলে দেখতে হবে ছানি পড়েছে কি না।
  • দু’ চোখে হতে পারে নানা কারণে। চোখের মাংসপেশির দুর্বলতা। কিছু বিশেষ ব্রেন টিউমার, পক্ষাঘাত। দ্রুত চোখের ডাক্তার দেখান।

চোখ কাঁপা বা মাইওকেমিয়া

  • ক্লান্তি, শরীরে নুনের ঘাটতি এবং কিছু ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় এ রকম হয়।
  • কারণ দূর হলে নিজে থেকে সেরে যায়। ১০ – ১৫ দিনে না সারলে ডাক্তার দেখান। চোখ বড় হয়ে ঠিকরে বেরিয়ে আসছে
  • থাইরয়েডের সমস্যা, চোখের পিছনে বা অপটিক নার্ভে টিউমার হলে হতে পারে।
  • দ্রুত চোখের ডাক্তার দেখান। দেরি হলে চোখ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

বেড়াল চোখ

  • অন্ধকারে জ্বলজ্বল করে চোখ। আকারে বড়। বাচ্চাদেরই হয় বেশি।
  • চোখে ক্যান্সার হলেও এ রকম হয়। ডাক্তার দেখান। দেরি হলে জীবন সংশয় হতে পারে।

চোখে আলোর ঝলকানি বা অজস্র্র কালো বিন্দু

  • চোখের সামনে আলোর ঝলক, কালো বিন্দু বা কালো ঝুলের মতো কিছু ঘুরে বেড়ায়।
  • নানা কারণে হতে পারে। সব চেয়ে বিপজ্জনক রেটিনা ডিটাচমেন্ট।
  • ডাক্তার দেখান।

চোখের মণিতে সাদা দাগ

  • কর্নিয়াল আলসার সেরে যাওয়ার পর অনেক সময় দাগ থেকে যায়।
  • চোখে আঘাত লাগলেও হতে পারে।
  • মণির মাঝখানে হলে দৃষ্টিশক্তি থাকে না। কর্নিয়া প্রতিস্থাপন একমাত্র রাস্তা।
  • অন্য জায়গা থাকলে দেখতে অসুবিধে না হলেও সৌন্দর্য ঘাটতি। দু’টি রাস্তা, রঙিন কনট্যাক্ট লেন্স বা উল্কি। উল্কির রঙ বছর তিনেক থাকে।

বয়স্ক মানুষ, চশমা পরেও আবছা দেখেন

  • চোখ দেখান, ছানি বা অন্য অসুখ আছে কি না দেখতে হবে। অসুখ না থাকলে কারণ অপটিক নার্ভের জরা, এজ রিলেটেড ম্যাকুলার ডিজেনারেশন।
  • এই অবস্থায় পড়াশোনা করতে —
    • ঘরে চড়া আলোর ব্যবস্থা করুন। পড়ুন আলোর দিকে পিছন ফিরে বসে।
    • আতস কাচের সাহায্য নিতে পারেন।
    • লাইনের উপর স্কেল রেখে পড়লে সুবিধে হবে।
  • দৃষ্টি কম থাকায় এখানেসেখানে পড়ে যেতে পারেন। ঠেকাতে—
    • নিচু খাট, চেয়ার, সোফা ব্যবহার করুন। বসলে যেন পা মাটিতে ঠেকে।
    • সিঁড়ির এক পাশে সাদা রঙ করে দিন। সে দিকের রেলিং ধরে ওঠানামা করুন।

চোখের নীচে কালি পড়লে

চেখের সমস্যা নয়। স্বাস্থ্য খারাপ হলে হতে পারে।

  • সবুজ শাকসবজি, জল খান প্রচুর। কোষ্ঠকাঠিন্য সারিয়ে ফেলুন।
  • দুশ্চিন্তা কমান। রাত্রে শান্তিতে ঘুমোন।

চোখের উপরের পাতা ঝুলে পড়ে চোখ বন্ধ হয়ে যাওয়া

ভাইরাস সংক্রমণ, ডায়াবেটিস, টিউমার ইত্যাদি কারণে হয়। দ্রুত ডাক্তার দেখান।

তথ্য : ডাঃ জ্যোতির্ময় দত্ত

3.0
মন্তব্য যোগ করুন

(ওপরের বিষয়বস্তুটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন মন্তব্য / পরামর্শ থাকে, তাহলে দয়া করে আমাদের উদ্দেশ্যে পোস্ট করুন).

Enter the word
ন্যাভিগেশন
Back to top