হোম / শক্তি / ওঁরা কী বলেন
ভাগ করে নিন
ভিউজ্
  • অবস্থা সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত

ওঁরা কী বলেন

শক্তি সুরক্ষার পথে উত্তরণ শক্তি ক্ষেত্রে বিশিষ্ট জনেদের সাক্ষাৎকার, মতামত থাকছে এখানে।

শক্তি সুরক্ষার পথে উত্তরণ
কয়লা, তেলের উপর নির্ভরতা কমিয়ে কেন আমাদের পুনর্নবীকরণযোগ্য‌ শক্তির ব্য‌বহার বাড়াতে হবে সেটাই ব্যাখ্যা করেছেন ডঃ শান্তিপদ গণচৌধুরী (ডিরেক্টর, গ্রিন এনার্জি ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন এবং প্রেসিডেন্ট, এন বি ইনিস্টিটিউট অফ রুরাল টেকনোলজি)
ফ্লোটিং সোলার পাওয়ার প্লান্ট
রাজ্যে এ ধরনের বিদ্যুৎকেন্দ্র বসানোর কথা এক সাক্ষাৎকারে জানালেন ডঃ শান্তিপদ গণচৌধুরী।
ফসিল ফুয়েল পুড়িয়ে আর কত দিন চলবে ?
জীবাশ্ম জ্বালানি ছেড়ে এ বার অন্য উৎস ব্যবহারের কথা ভাবতেই হবে, জানিয়েছেন প্রখ্যাত বিজ্ঞানী বিকাশ সিংহ।
সূর্য থাকতে মোমবাতি কেন
সৌরশক্তির ব্যবহার কী ভাবে বাড়ানো যায়, তা হাতেকলমে করে দেখিয়েছেন শেখর বন্দ্য‌োপাধ্য‌ায় ও পার্থসারথি মজুমদার।
রৌদ্র থেকে ঠান্ডা রাখার ব্যবস্থা
রৌদ্র থেকেই সস্তায় ঠান্ডা থাকার উপায় বের করা যায়। লিখেছেন এস অনন্তনারায়ণন।
পুনর্নবীকরণযোগ্য‌ শক্তির ব্য‌বহার
জয় চক্রবর্তীর লেখা এই নিবন্ধে পুনর্নবীকরণযোগ্য‌ শক্তি এবং পশ্চিমবঙ্গের পরিপ্রেক্ষিতে তার ব্য‌বহার নিয়ে খুবই সহজসরল ভঙ্গিতে কিছু কথা জানানো হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে পুনর্নবীকরণযোগ্য‌ শক্তির কী কী প্রকল্প চালু আছে তার বিবরণও সংক্ষেপে দেওয়া হয়েছে।
ভারতের শক্তি নিরাপত্তা : একাধারে সমস্য‌া ও সম্ভাবনা
ভারতের শক্তি নিরাপত্তার সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে এখানে আলোচনা করেছেন দ্য এনার্জি অ্য‌ান্ড রিসোর্সেস ইনিস্টিটিউট (টেরি)-র সহযোগী পরিচালক ড. রিতু মাথুর।
ভারতে সুস্থিত বিদ্য‌ুৎ সরবরাহ
জ্বালানির চাহিদা আগামী দিনে বাড়বেই। আর তা মেটাতে পুনর্নবীকরণযোগ্য‌ শক্তির নানা উৎসের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা হয়। কিন্তু শক্তির সুদক্ষ ব্যবহারের দিকটিও সমান গুরুত্বপূর্ণ। লিখছেন দিল্লি আইআইটি-র সেন্টার ফর এনার্জি স্টাডিজের অধ্য‌াপক নরেন্দ্র কে বনশল।
কয়লা ধুলে যায় না ময়লা
জ্বালানি থেকে শক্তি উৎপাদন, আর তার সাহায্যেই উন্নয়ন। আবার জ্বালানি থেকে শক্তি উৎপাদন আর তা থেকেই পরিবেশ দূষণ। এই টানাপড়েন থেকে রক্ষা পাওয়ার কোনও উপায় আছে? লিখছেন অর্থনীতির অধ্যাপক অনিন্দ্য ভুক্ত।
ভারতের শক্তি নিরাপত্তা
মানুষের জীবনযাত্রা এখন শক্তি-নির্ভর। অথচ এই জ্বালানির ব্যবহার আমাদের অস্তিত্বকেও বিপন্ন করে তুলছে উষ্ণায়ন ও তজ্জনিত বিভিন্ন কারণে। এরই মধ্যে আশার কথা শুনিয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্য‌ালয়ের স্কুল অফ এনর্জি স্টাডিজের প্রাক্তন অধিকর্তা সুজয় বসু।
ন্যাভিগেশন
Back to top